হোসাইনি প্রেমিক ও অনুসারীদের পবিত্র আশুরাতে শোক মতম

responsive

সৈয়দ নাজমুল হাসান, ঢাকা ||

আজ শুক্রবার (২০ আগস্ট) ১০ মহররম পবিত্র আশুরা। বিশ্ব মুসলিমের জন্য গভীর শোকাবহ দিন। আরবি ‘আশারা’ শব্দের অর্থ ১০। আর এ জন্যই হিজরি সনের প্রথম মাস মহররমের ১০ তারিখ আজকের দিনটিকে ‘আশুরা’ বলে অভিহিত করা হয়। কারবালার শোকাবহ ও হৃদয়বিদারক ঘটনার এই দিনটি ধর্মীয়ভাবে বিশ্বের মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের কাছে বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ। এটি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ ও শোকাবহ একটি দিন। 

হিজরি ৬১ সনের (৬৮০ খ্রিস্টাব্দ) ১০ মহররম ইরাকের কুফা নগরের অদূরে ফোরাত নদীর তীরে কারবালা মরু প্রান্তরে ইয়াজিদ বাহিনীর হাতে সঙ্গী-সাথিসহ নির্মমভাবে শহীদ হন মহানবী হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহে ওয়াসাল্লাম-এর দৌহিত্র জান্নাতে যুবকদের সরদার হযরত ইমাম হুসাইন রাদিয়াল্লাহু আনহু । অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ ও সত্যকে প্রতিষ্ঠা করতে গিয়ে হযরত ইমাম হুসাইন রাদিয়াল্লাহু আনহু'র আত্মত্যাগের এই ঘটনা ইসলামের ইতিহাসে সমুজ্জ্বল হয়ে আছে।

ত্যাগ ও শোকের প্রতীকের এ ঘটনা স্মরণ করে বিশ্ব মুসলিম যথাযোগ্য মর্যাদায় শোকাবহ দিনটি পালন করে থাকে। বাংলাদেশেও যথাযোগ্য মর্যাদায় ও সংক্ষিপ্ত কর্মসূচিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পবিত্র আশুরা পালিত করে হোসাইনি প্রেমিক ও অনুসারীরা। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির কারণে এবার পবিত্র আশুরা উপলক্ষে সব ধরনের তাজিয়া মিছিল, শোভাযাত্রা, মিছিল বন্ধ থাকলেও পুরাতন ঢাকার হোসাইনি দালানের নিজস্ব অঙ্গনের মধ্যে স্বল্প পরিসরে পালন করার অনুমতি দেয় স্থানিয় প্রশাসন। মহররমের শোক মিছিলটি সকাল ১০ টায় শুরু হয় এবং জুম্মা নামাজের পূর্বেই সমাপ্ত হয়।

এদিকে হোসাইনি দালান ইমামবাড়া কমিটি শোকাবহ দিনটি পালনের জন্য সকল প্রস্তুতি আগেই সম্পন্ন করে। স্থানিয় প্রশাসন র‌্যাব, পুলিশ পুরো এলাকা জুড়ে কঠোর নিরাপত্তা নিশ্চিত করে। 

হোসাইনি দালান ইমামবাড়া কমিটির সুপারিনটেনডেন্ট এম এম ফিরোজ হোসাইন বলেন, ১০ মহররম পবিত্র আশুরা। এই দিনে কারবালার ময়দানে ইমাম হুসাইন (আঃ) অন্যায় অসতের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেছিলেন। শহীদ হয়েছিলেন ৭২ জন । তিনি যে সত্য প্রতিষ্ঠা করেছিলেন তাঁরই বহিঃপ্রকাশ হিসেবে প্রতি বছর ১০ ই মহররম দিনটি পালন হয়ে থাকে।

তিনি আরও বলেন, "ইসলাম সত্যের উপর ভিত্তি করে আজকে এখানে এসে দাঁড়িয়েছে। আমরা সেই সত্যকে প্রতি বছর পালন করার জন্য করে থাকি আশুরা মিছিল। আমাদের উদ্দেশ্য ইমাম হুসাইন (আঃ) যে সত্য প্রতিষ্ঠা করেছিলেন সেটা সমুন্নত রাখা। তাই প্রতি বছর ১০ মহররম পবিত্র আশুরা করে থাকি।" 

 

 

responsive

মন্তব্যসমূহ (০)


ব্রেকিং নিউজ

লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন