নিত্যপণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রনে ব্যর্থ বাণিজ্যমন্ত্রী : ন্যাপ

responsive


পেঁয়াজ, আলু, সবজি, ভোজ্যতেলসহ নিত্যপণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রনে সরকারের বাণিজ্যমন্ত্রী পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে বলে মন্তব্য করে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্য নিয়ন্ত্রহীনতার কারণে দিশেহারা হয়ে পড়েছে নিম্নবিত্ত মানুষসহ হতদরিদ্র পরিবারগুলো। এ পরিস্থিতিতে নিত্যপণ্যের বাজার নিয়ন্ত্রনে ‘ব্যর্থ’ বাণিজ্যমন্ত্রীর পদত্যাগ করা উচিত।

রবিবার (১০জানুয়ারি) দলের দপ্তর সম্পাদক মো. নুরুল আমান চৌধুরী স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে তারা এ দাবী করেন।

তারা বলেন, আলু, চালের পর এবার সিন্ডিকেটের থাবা পড়েছে ভোজ্যতেল ও ডালের বাজারে। মিলগেট থেকে এই চক্র প্রতি সপ্তাহেই নীরবে দুটি নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি করছে। ফলে পাইকারি ও খুচরা পর্যায়ে দাম বাড়ছে। আর ভোক্তাদের এই পণ্য দু’টি পণ্য কিনতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হচ্ছে।

নেতৃদ্বয় বলেন, নিত্যপণ্যের বাজার এখন অসাধু সিন্ডিকেটের নিয়ন্ত্রনে। পেঁয়াজে নৈরাজ্যের পর চাল, আলু ও ভোজ্যতেল নিয়ে সিন্ডিকেটের কারসাজি চলছে। হু হু করে বৃদ্ধি পাচ্ছে মুল্য। এসব পণ্যের দাম নাগালে রাখতে সরকার বার বার মূল্য নির্ধারণ করে দিলেও তা বাজারে কার্যকর হচ্ছে না। বাজার নিয়ন্ত্রণে সকল প্রচেষ্টা ব্যর্থ হচ্ছে বাণিজ্য মন্ত্রনালয়ের। ব্যবসায়ীরা অতিরিক্ত মূল্যেই এসব ভোগ্যপণ্য বিক্রি করছেন। ফলে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতিতে ভোক্তাদের নাভিশ্বাস অবস্থা।

বাংলাদেশ ন্যাপ নেতৃদ্বয় বলেন, যথাযথ তদারকির অভাবে সুযোগ পেলেই অসাধু ব্যবসায়ীরা নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মূল্যবৃদ্ধি করে ভোক্তার পকেট কেটে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। সরকারের পক্ষ থেকে চক্রের সদস্যদের চিহ্নিত করা হলেও বাণিজ্য মন্ত্রনালয় তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহনে পরিপূর্ণ ব্যর্থ।

নেতৃদ্বয় অব্যাহতভাবে নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, বাজার নিয়ন্ত্রণে সিন্ডিকেট নিয়ন্ত্রণ অতি জরুরি। বর্তমানে তেল ও চালসহ নিত্যপণ্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধির কোনো কারণ নেই। এমনিতেই করোনায় অনেকের আয় কমে গেছে, কেউ বেকার হয়ে পড়েছেন। এ অবস্থায় মরার ওপর খাঁড়ার ঘায়ের মতো নেমে এসেছে নিত্যপণ্যের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি। এতে করে মধ্যবিত্ত ও সীমিত আয়ের মানুষ চরম দুর্ভোগের মধ্যে পড়েছে।

মন্তব্যসমূহ (০)


ব্রেকিং নিউজ

লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন