শ্রাবন্তীর মোবাইল নাম্বার জোগাড় করেন যেভাবে খুলনার মাহাবুব

responsive

জিবিনিউজ 24 ডেস্ক //

ভারতের জনপ্রিয় চিত্রনায়িকা শ্রাবন্তী চট্টপাধ্যায়ের মোবাইল ফোনে এসএমএস দিয়ে কুপ্রস্তাব দেওয়ার মামলায় খুলনার যুবক মাহবুবুর রহমানকে একদিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় সোনাডাঙ্গা থানা পুলিশ তাকে রিমান্ডে নেয়। তাকে এ মামলা সংক্রান্ত বেশ কয়েকটি বিষয় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও সোনাডাঙ্গা থানার ওসি (তদন্ত) রাধেশ্যাম সরকার জানান, বেশ কিছুদিন আগে মাহবুব ভারতের বারাসাতে তার আত্মীয় বাড়িতে বেড়াতে যান। সেখান থেকে নায়িকা শ্রাবন্তীর মোবাইল নাম্বার সংগ্রহ করে নিয়ে আসেন। মাঝেমাঝে মোবাইলে কল দিলেও শ্রাবন্তী রিসিভ করতেন না। সম্প্রতি শ্রাবন্তীর মোবাইল ফোনে এসএমএস পাঠিয়ে কুপ্রস্তাব দেন মাহবুব। এরপর শ্রাবন্তী ভারত সরকারের মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকারের কাছে এর বিচার চান।

 

তিনি জানান, এরপর পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশে গত ১৫ নভেম্বর সোনাডাঙ্গা থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে পুলিশ। ওই দিনই মাহবুবকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরদিন তাকে আদালতে পাঠিয়ে ৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে পুলিশ। বৃহস্পতিবার শুনানি শেষে একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

পুলিশ জানিয়েছে, ৩৩ বছর বয়সের মাহবুবুর রহমান নগর বকশিপাড়া এলাকার সামছুল আলমের বাড়ির ভাড়াটিয়া আতিকুর রহমানের ছেলে। তিনি একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মাস্টার্স পাস এবং অবিবাহিত। ৩ বোন ও ২ ভাইয়ের মধ্যে মাহাবুব সবার ছোট।

তবে মাহবুবের বড় বোন ফেরদৌসী রহমান জানান, তার ভাই কিছুটা মানসিক সমস্যায় ভুগছেন। এজন্য নিউরো মেডিসিন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দেখিয়ে ওষুধ খেতেন। মানসিক অসুস্থতার কারণে তিনি নায়িকা শ্রাবন্তীকে এসএমএস পাঠিয়েছেন বলে তাদের ধারণা।

মন্তব্যসমূহ (০)


ব্রেকিং নিউজ

লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন