বাজেটে দরিদ্র মানুষদের জন্য সরকার কিছুই করেনি: ফখরুল

responsive

জিবিনিউজ 24 ডেস্ক//

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বাজেটে দরিদ্র মানুষদের জন্য আওয়ামী লীগ সরকার কিছুই করেনি। সরকার মানুষের পকেট কেটে এ দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংস করার ব্যবস্থা করেছেন।।

শুক্রবার (১০ জুন) রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত এক প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য দেন মির্জা ফখরুল। গ্যাসসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি যৌথভাবে এ প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে।

 

বিএনপি মহাসচিব বলেন, আওয়ামী লীগ এমন উন্নয়ন করেছে যে দেশের ৪২ শতাংশ মানুষ দারিদ্র্যসীমার নিচে চলে গেছে। অর্থাৎ ১০০ জনের মধ্যে ৪২ জন দরিদ্র। তাদের ক্রয়ক্ষমতা নেই। তাদের জন্য এই বাজেটে কিছুই নেই।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘যখন মানুষ চাল, ডাল, তেল, লবণ—এসব কিনতেই হিমশিম খাচ্ছে, তার মধ্যে মড়ার উপর খাঁড়ার ঘা হিসেবে গ্যাসের দাম বাড়িয়ে দিয়েছে সরকার। এর অর্থ হচ্ছে এই সরকারের দেশের মানুষের প্রতি কোনো ভালোবাসা নেই।’

জনগণের পকেট থেকে টাকা কেটে কেটে প্রশাসনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সুযোগ-সুবিধা সরকার বাড়াচ্ছে বলে অভিযোগ করেন বিএনপির মহাসচিব। তিনি বলেন, বাজেটে দেখবেন, সবচেয়ে বেশি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে প্রশাসন খাতে। পুলিশ, ম্যাজিস্ট্রেট, জেলা প্রশাসক, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারা প্রশাসনের লোকজন। সরকার তাঁদের বেতন বাড়াচ্ছে। বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা বাড়াচ্ছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘প্রস্তাবিত বাজেটের সবকিছু ব্যাখ্যা করলে দেখা যায়, সরকার চোর-ডাকাত-অর্থ পাচারকারীদের সাহায্য করেছে। যারা টাকা চুরি করল, ডাকাতি করল, লুণ্ঠন করে টাকা বিদেশে পাচার করে দিল, যারা পি কে হালদারের মতো, তারা ৭ শতাংশ ট্যাক্স দিলে টাকা ফেরত আনতে পারবে। কেউ কোনো প্রশ্ন করতে পারবে না। ফলে তাদের দুদকও ধরবে না। হাইকোর্ট থেকেও তাদের কোনো প্রশ্ন করা যাবে না।’

আওয়ামী লীগ সরকার জনগণের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারা জনগণের শত্রু। বাসভাড়া ও গ্যাসের দাম বেড়েছে। তারা আবার ঘোষণা দিয়েছে, সারের দামও বাড়বে। অর্থাৎ কৃষি খাতে সারের দাম তিন গুণ বাড়বে। শিল্প-কলকারখানায় যে গ্যাস ব্যবহার করা হয়, তার দামও বাড়বে। প্রতিটি জিনিসের দাম এভাবে বাড়বে।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বিএনপির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক আবদুস সালাম। অন্যদের মধ্যে ছিলেন দলটির ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সদস্যসচিব রফিকুল আলম, বিএনপির ঢাকা মহানগর উত্তরের সদস্যসচিব আমিনুল হক, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, ঢাকা মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক আমানউল্লাহ আমান প্রমুখ।

responsive

মন্তব্যসমূহ (০)


ব্রেকিং নিউজ

লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন