আমরা ভীত নই, বললেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট

responsive

জিবি নিউজ 24 ডেস্ক //

রাশিয়া সমর্থিত ইউক্রেনের বিচ্ছিন্নতাবাদী অঞ্চলে ভ্লাদিমির পুতিনের সেনা প্রবেশের নির্দেশের প্রেক্ষিতে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেছেন, আমরা ভীত নই।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মঙ্গলবার (২২ ফেব্রুয়ারি) স্থানীয় সময় সকালে তিনি এক টেলিভিশন বক্তৃতায় এমন কথা বলেন। এ সময় তিনি তিনি রাশিয়ার প্রতি শান্তির আহ্বান জানিয়েছেন।

 

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি বলেন, আমরা শান্তিপূর্ণভাবে কূটনৈতিক আলোচনায় বিশ্বাসী। একটি স্বাধীন সার্বভৌম দেশে বাস করি আমরা। আমরা কাউকে ভয় পাই না এবং কোনো কিছুতে ভয় পাই না। আমরা কারও কাছে ঋণী নই। আমরা কাউকে ছাড় দেব না। এটা ২০১৪ সালের ফেব্রুয়ারি নয়, এটা ২০২২ সালের ফেব্রুয়ারি। ইউক্রেন একটি আলাদা দেশ। এর আলাদা সেনাবাহিনী আছে। আমাদের একটাই লক্ষ্য, সেটি হচ্ছে ‘শান্তি’।

টেলিভিশন ভাষণে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট তার মিত্রদের কাছ থেকে রাশিয়াকে থামানোর জন্য ‘স্পষ্ট এবং কার্যকর’ পদক্ষেপের প্রত্যাশা করছেন। তিনি ইউক্রেন, রাশিয়া, জার্মানি এবং ফ্রান্সের নেতাদের জরুরি শীর্ষ বৈঠকের আহ্বান জানিয়েছে।

রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, রাশিয়া শান্তি আলোচনার পথ রুদ্ধ করে দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। তিনি শান্তির প্রশ্নে কোনো আঞ্চলিক ছাড় দেবেন না বলেও হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন।

এদিকে ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের বিদ্রোহী নিয়ন্ত্রিত দুটি রুশপন্থী অঞ্চলকে স্বাধীন রাষ্ট্রের স্বীকৃতি দিয়েছে মস্কো। এর কয়েক ঘণ্টা পরই ওই দুই অঞ্চলে রাশিয়ার সেনা মোতায়েনের নির্দেশ দিয়েছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। রাশিয়া স্থানীয় সময় সোমবার পুতিন এ নির্দেশ দেন।

বার্তা সংস্থা এএফপির প্রতিবেদনে বলা হয়, দুটি সরকারি ডিক্রিতে, পুতিন প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়কে দোনেস্ক এবং লুগানস্ক অঞ্চলে শান্তি রক্ষার কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন।

তবে কবে থেকে ওই অঞ্চলে সেনা মোতায়েন হবে সে ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু বলেননি পুতিন। পুতিনের ডিক্রিতে বলা হয়েছে যে এই আদেশ যেদিন স্বাক্ষরিত হয়েছে সেদিন থেকে কার্যকর হবে।

রাশিয়ার এমন সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে ইউক্রেনের বিচ্ছিন্ন অঞ্চলগুলোর ওপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। গতকাল সোমবার হোয়াইট হাউসের এক কর্মকর্তা বলেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনের যে দুইটি বিচ্ছিন্নতাবাদী অঞ্চলকে স্বাধীন হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছেন, সেই দুটি অঞ্চলের ওপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। যুক্তরাষ্ট্রের গণমাধ্যম নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, রুশ সমর্থিত অঞ্চলে অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপ করলেও সরাসরি রাশিয়ার ওপর এখনই কোনো নিষেধাজ্ঞা আরোপ করবে না যুক্তরাষ্ট্র।

অন্যদিকে, সোমবার রাতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ একটি জরুরি বৈঠক করেছে।

responsive

মন্তব্যসমূহ (০)


ব্রেকিং নিউজ

লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন