মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল উপজেলার ১৮টি ইউনিয়নে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট গ্রহন অনুষ্টিত

responsive

এস এম ফজলু :

কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া বিপুল উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল উপজেলার ১৮টি ইউনিয়নে শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট গ্রহন শেষ হয়েছে। ৫ জানুয়ারি বুধবার পঞ্চম ধাপে কমলগঞ্জ ও শ্রীমঙ্গল উপজেলায়র ১৮ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৭৯ জন, সাধারন সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ৯৫৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করেন। শান্তি পূর্ণভাবে ভোট গ্রহণের লক্ষ্যে আইন শৃংখলাবাহিনী তৎপরতা ছিল লক্ষ্যনীয়। সকাল থেকেই দীর্ঘ লাইন, তীব্র শীতের মধ্যেও ভোটাররা ছুটে আসেন ভোট দিতে। নারী পুরুষদের উপস্থিতিও ছিলো চোখে পড়ার মতো” যতটুকু সঙ্কার আসঙ্কা ছিলো” তার কোনোটাই দেখা যায় নি”এমন টাই বলেছেন সাধারণ ভোটাররা। আর নতুন ভোটাররাও তাদের প্রথমবারের ভোট শান্ত সৃষ্ঠ ভাবে দিতে পেরে আনন্দিত তারাও। পঞ্চম ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলায় নয় ইউনিয়নে প্রাথমিকভাবে এসকল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদের ফল পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে ১নং মির্জাপুর ইউনিয়নে (ঘোড়া) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি সমর্থিত বিদ্রোহী প্রার্থী মিজলু আহমদ চৌধুরী। ২নং ভূনবীর ইউনিয়নে (নৌকা) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী মো. আব্দুর রশীদ। ৩নং শ্রীমঙ্গল ইউনিয়নে (ঘোড়া) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি সমর্থিত বিদ্রোহী প্রার্থী মো. দুদু মিয়া। ৪নং সিন্দুরখান ইউনিয়নে (ঘোড়া) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি সমর্থিত বিদ্রোহী প্রার্থী ইয়াছিন আরাফাত রবিন। ৫নং কালাপুর ইউনিয়নে (নৌকা) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী এম এ মতলিব। ৬নং আশিদ্রোন ইউনিয়নে (নৌকা) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী রনেন্দ্রপ্রসাদ বর্ধন জহর। ৭নং রাজপাট ইউনিয়নে (নৌকা) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী বিজয় বুনার্জী। ৮নং কালীঘাট ইউনিয়নে (নৌকা) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী প্রানেশ গোয়ালা। ৯নং সাতগাঁও ইউনিয়নে (নৌকা) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী দেবাশীষ দেব রাখুন। বুধবার (৫ জানুয়ারি) শ্রীমঙ্গল উপজেলায় নয় ইউনিয়নের মোট ১০০টি কেন্দ্রে সকাল আটটা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত বিরামহীনভাবে চলে ভোটগ্রহণ। অন্যদিকে কমলগঞ্জ উপজেলার নয় ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এরই মধ্যে প্রাথমিকভাবে উপজেলার এসকল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদের ফল পাওয়া গেছে। স্থানীয়ভাবে পাওয়া ভোটের ফলাফল অনুযায়ী, ১নং রহিমপুর ইউনিয়নে (নৌকা) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী ইফেতখার হোসেন বদরুল। ২নং পতনঊষার ইউনিয়নে (আনারস) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি সমর্থিত বিদ্রোহী প্রার্থী অলি আহমদ খান। ৩নং মুন্সিবাজার ইউনিয়নে (আনারস) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি সমর্থিত বিদ্রোহী প্রার্থী নাহিদ আহমদ তরফদার। ৪নং শমসেরনগর ইউনিয়নে (আনারস) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী প্রার্থী জুয়েল আহমদ। ৫নং কমলগঞ্জ ইউনিয়নে (নৌকা) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী আব্দুল হান্নান। ৬নং আলীনগর ইউনিয়নে (আনারস)প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী নিয়াজ মোর্শেদ রাজু। ৭নং আদমপুর ইউনিয়নে (ঘোড়া) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি সমর্থক বিদ্রোহী প্রার্থী আবদাল হোসেন। ৮নং মাধবপুর ইউনিয়নে (নৌকা) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী আসিদ আলী। ৯নং ইসলামপুর ইউনিয়নে (নৌকা) প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী সুলেমান মিয়া। বুধবার (৫ জানুয়ারি) কমলগঞ্জ উপজেলায় নয় ইউনিয়নে সকাল আটটা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত বিরামহীনভাবে চলে ভোটগ্রহণ। উল্লেখ্য, গত ২৭ নভেম্বর পঞ্চম ধাপের ইউপি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ৭ ডিসেম্বর, মনোনয়নপত্র বাছাই ৯ ডিসেম্বর, আপিল দায়েরের সময় ছিল ১০-১২ ডিসেম্বর, আপিল নিষ্পন্নের সময় ছিল ১৩-১৪ ডিসেম্বর, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় ছিল ১৫ ডিসেম্বর, প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয় ১৭ ডিসেম্বর।

responsive

মন্তব্যসমূহ (০)


ব্রেকিং নিউজ

লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন