টাওয়ার হ্যামলেটসের মার্কেটগুলোর উন্নয়নে বিনিয়োগ করছে কাউন্সিল

responsive

বারার অর্থনৈতিক পুণরুদ্ধারকে জোরদার করার লক্ষ্যে স্থানিয় স্ট্রিট মার্কেট গুলোতে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল মেয়রের কোভিড কিরভারি ফান্ড থেকে ১ লাখ ৪০ হাজার পাউন্ডের বেশি অর্থ বিনিয়োগ করছে। মহামারীর প্রভাবে ক্ষতিগ্রস্ত স্টল মালিকদের সহযোগিতা এবং মার্কেটগুলোতে কাজ করতে স্থানীয় লোকজনের উদ্বুদ্ধ করতে এই তহবিল ব্যয় করা হবে।

স্ট্রিট মার্কেট বিজনেস কিভাবে গড়ে তুলতে হয় এবং সাফল্যের সাথে তা পরিচালনা করতে হয়, সেজন্য স্থানীয় বাসিন্দাদের জন্য ১ সপ্তাহ ব্যাপি ফ্রি ট্রেডার ট্রেনিং কোর্সের আয়োজন করেছে কাউন্সিল।

এই কর্মশালায় সাফল্যের সাথে অংশ গ্রহণকারীদের কয়েকজন প্রতিষ্ঠিত স্টল হোল্ডার অর্থাৎ স্টল ব্যবসায়ীদের পাশে থেকে কাজ করার সুযোগ পাবেন, যা তাদেরকে অভিজ্ঞতা অর্জনের সুযোগ করে দেবে এবং হতে পারে এটি তাদের জন্য ব্যবসায়ী হিসেবে আত্মপ্রকাশের একটা অসাধারণ পদক্ষেপ।

সাধারণভাবে বারার বাজারগুলোকে আরো সহযোগিতা করার জন্য, কাউন্সিল প্রতিটি ঐতিহাসিক মার্কেটপ্লেসের জন্য বিশেষ ওয়েবসাইট তৈরীর লক্ষ্যে মুভিং মার্কেটস্ অনলাইন প্রজেক্টকে সমর্থন করছে এবং মার্কেটগুলোতে অধিক সংখ্যক ক্রেতাকে আকৃষ্ট করতে সোশ্যাল মিডিয়ায় উপস্থিতি বাড়াচ্ছে।

এই প্রকল্পের অংশ হিসেবে, মুভিং মার্কেট অনলাইন প্রজেক্টে যোগ দেয়ার মাধ্যমে ডিজিটাল মার্কেটিং এ আগ্রহী ১৭-২৪ বয়সের তরুণরা তাদের ক্যারিয়ার গড়ে তোলার সুযোগ পাবেন। 

ঐতিহাসিক হোয়াইটচ্যাপল মার্কেটের যে সকল স্টল হোল্ডার মেন্টর হিসেবে নতুন ট্রেডারদের কাজের সুযোগ করে দিয়েছেন এবং যারা তাদের স্টলে বেশি সংখ্যক ক্রেতাকে আকৃষ্ট করতে অনলাইনে সক্রিয় রয়েছেন, তাদের কয়েকজনের সাথে দেখা করতে মেয়র জন বিগস সম্প্রতি মার্কেটটি পরিদর্শন করেন।

এ প্রসঙ্গে মেয়র জন বিগস বলেন, মহামারী অনেক ব্যবসায় কঠোরভাবে আঘাত করেছে এবং এক বছরেরও বেশি সময় বন্ধ থাকায় মার্কেট বা হাটের ব্যবসায়ীদের জন্য সবচেয়ে বিপর্যয়কর হয়েছে। এখন, জীবন যখন স্বাভাবিক ধারায় ফিরে আসছে, আমরা মার্কেটস্ মুভিং অনলাইন প্রজেক্টর মাধ্যমে ব্যবসায়ীদের তাদের পায়ে শক্তভাবে দাঁড়াতে সহযোগিতা করার পাশাপাশি বাসিন্দারা যারা কখনোই মার্কেট স্টল দিয়ে আয় রোজগার করবেন বলে ভাবেননি, তাদেরও কাজের সুযোগ করে দিতে চাই।

ডেপুটি মেয়র ফর ওয়ার্ক এন্ড ইকনোমিক গ্রোথ এন্ড ফেইথ, কাউন্সিলর মতিন উজ-জামান বলেন, লন্ডনের অন্য যেকোন বারার তুলনায় আমাদের রয়েছে অনেকগুলো অসাধারণ মার্কেট বা হাট। আমি আশা করছি বাসিন্দারা ফ্রি ট্রেডার ট্রেনিং কোর্সে অংশ নিবেন, কারণ আপনি হয়তো জানেনই না, এটা আপনাকে কোথায় নিয়ে যেতে পারে।

যে সকল ট্রেডার মেন্টর হতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন, তাদের মধ্যে রয়েছেনঃ

সাইয়েদ রেহমান, হোয়াইটচ্যাপল মার্কেটের একজন ফ্যাশন ট্রেডার;

শাথিল ইসলাম, ক্লাটার স্ট্রিট ভিত্তিক ফুড ট্রেডার;

মার্ক গেভক্স, ব্রিক লেনের স্ট্রিট ফুড ট্রেডার;

আলতাফ হোসেন, রোমান রোড/ বেথনাল গ্রীণের একজন ফ্যাশন ট্রেডার;

এনজো মোশেটা, রোমান রোড স্কোয়ারে ব্রেড ট্রেডার;

নিসিপ ফেহমি, হোয়াইটচ্যাপল রোড/মাইল এন্ড রোডের একজন ফ্যাশন ট্রেডার;

ট্রেডার ট্রেনিং কোর্সে অংশ নিতে অথবা ডিজিটাল মিডিয়া প্রজেক্টে কাজ করতে আগ্রহীরা [email protected]  - এই ই মেইলে যোগাযোগ করতে পারেন।

responsive

মন্তব্যসমূহ (০)


ব্রেকিং নিউজ

লগইন করুন


Remember me Lost your password?

Don't have account. Register

Lost Password


মন্তব্য করতে নিবন্ধন করুন